Blog Page 2

‘ফরিদপুরের উপভাষা আন্বয়িক গঠন’ লেখক- ইয়াসমীন আরা লেখা

0

‘ফরিদপুরের উপভাষা আন্বয়িক গঠন’
লেখক- ইয়াসমীন আরা লেখা

প্রকাশক- বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন, ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ ও অঙ্গসজ্জা- হাশেম খান

বইমেলার বাংলা একাডেমির প্রাঙ্গণে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের স্টল নং ৩০ ও ৩১ এ পাওয়া যাচ্ছে।

ProvcBook3Web

শিক্ষা ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্য ভাষাসৈনিক আব্দুল মতিন স্মৃতি পদক ২০১৭ গ্রহন করছেন উত্তরা ইউনিভার্সিটির প্রো-ভিসি প্রফেসর ড. ইয়াসমিন আরা লেখা

0

১০ ফেব্রুয়ারী ২০১৭ ঢাকার সেগুন বাগিচায় প্রফেসর আক্তার ইমাম অডিটোরিয়ামে স্বাধীনতা সংসদ আয়োজিত আলোচনা সভা ও ভাষাসৈনিক আব্দুল মতিন স্মৃতি পদক ২০১৭ প্রদান অনুষ্টানের প্রধান অতিথি বিচারপতি আব্দুস সালাম মামুন এর কাছ থেকে শিক্ষা ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্য ভাষাসৈনিক আব্দুল মতিন স্মৃতি পদক ২০১৭ গ্রহন করছেন উত্তরা ইউনিভার্সিটির প্রো-ভিসি প্রফেসর ড. ইয়াসমিন আরা লেখা

ক্যান্সার সচেতনতা নিয়মিত স্বাস্থ্যপরীক্ষা গুরুত্বপূর্ণ

0
চি কিত্সাবিজ্ঞান বিশ্বব্যাপী অনেকদূর এগোলেও অনেক রোগই এখন পর্যন্ত নিয়ন্ত্রণ বা নির্মূল করা সম্ভব হয়নি। এর মধ্যে নারীদের ব্রেস্ট ক্যান্সার বা স্তন ক্যান্সার আতঙ্কজনক একটি রোগ হিসেবে চিহ্নিত। বাংলাদেশসহ সারাবিশ্বে স্তন ক্যান্সার রোগীর সংখ্যা নেহায়েত কম নয়। বিভিন্ন পরিসংখ্যানে জানা যায়, স্তন ক্যান্সারে বছরে নতুন করে আক্রান্ত ও মৃত্যুর হার প্রায় সমান। বাংলাদেশে প্রতি বছর স্তন ক্যান্সারে আক্রান্ত হন ১৪ হাজার ৮৩৬ জন নারী, যার মধ্যে বছরে মারা যান ৭ হাজার ১৪২ জন। নারী ক্যান্সার রোগীদের মধ্যে আক্রান্ত ও মৃত্যুর হার ২৩.৯% ও ১৬.৯%। ইন্টারন্যাশনাল এজেন্সি ফর রিসার্চ অন ক্যান্সার এর তথ্যমতে, (দেশের জনসংখ্যা ১৫ কোটি ২৪ লাখ ৮ হাজার ধরে) প্রতিবছর মোট এক লাখ ২২ হাজার ৭০০ জন নতুন করে বিভিন্ন ধরনের ক্যান্সারে আক্রান্ত হন। যার মধ্যে মারা যান ৯১ হাজার ৩০০ জন।

নারী উদ্যোক্তাদের প্রতি সহযোগিতার হাত বাড়ান

0

বাংলাদেশের উন্নয়নে পুরুষদের পাশাপাশি নারীরাও আজ সমান তালে অবদান রাখছে। বিভিন্ন পেশায় নারীরা তাদের দক্ষতা প্রমাণ করছে। সরকারও নারীসমাজকে এগিয়ে নিতে বদ্ধপরিকর। এই পরিস্থিতিতে নারীরা সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের সহায়তা না পেলে তাদের এগিয়ে চলার পথ যেমন রুদ্ধ হবে, তেমনি সরকারের পদক্ষেপও ব্যাহত হবে। সরকার যেভাবে সর্বস্তরে নারীদের এগিয়ে আসার জন্য উৎসাহ দিয়ে যাচ্ছে তার জন্য চাই সমাজ ও রাষ্ট্রের সব স্তরের সহযোগিতা। আর এই সহযোগিতার ক্ষেত্রে দায়িত্বশীল পদে থেকে যাঁরা প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করবেন তাঁদের চিহ্নিত করতে হবে এবং প্রতিবন্ধকতা দূর করতে হবে। তাহলেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তাঁর সরকারের স্বপ্ন পূরণ হবে।বাংলাদেশে নারীসমাজের উন্নয়ন ও নারীর ক্ষমতায়নে বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর উদ্যোগ অবিস্মরণীয় হয়ে থাকবে। নারীশিক্ষা থেকে শুরু করে কর্মসংস্থানের ক্ষেত্রেও তাঁর যে পরিকল্পনা ও পদক্ষেপ, তা বাংলাদেশের নারীকুলকে আশান্বিত করে। ধর্মীয় কূপমণ্ডূকতার সঙ্গে লড়াই করে বা ধর্মের নামে উগ্র চেতনাকে অগ্রাহ্য করে বাংলাদেশের নারীরা গত কয়েক বছরে যে পর্যায়ে নিজেদের নিয়ে গেছে, তা কিন্তু রাষ্ট্রের সমর্থন ও সাহসিকতার কারণে সম্ভব হয়েছে। সরকারের পাশাপাশি এ ক্ষেত্র তৈরির জন্য দেশের নারী সংগঠনগুলোর ভূমিকাকেও খাটো করে দেখা যাবে না। 

Recent News

Popular Posts